গোগনগরে মার্কেট ও বসত বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ।। প্যানেল চেয়ারম্যান রুবেলকে প্রধান আসামী করে সদর থানায় অভিযোগ

খবর নারায়ণগঞ্জ.কম :
গত ২০ জুন (সোমবার) রাত সাড়ে ১০টায় ঢাকা-মুন্সীগঞ্জ সড়কের পুরান সৈয়দপুর এলাকায় জলিল সুপার মার্কেট ও পুরান সৈয়দপুর মসজিদের দক্ষিন পাশে বসত বাড়ীতে হামলার ঘটনা ঘটে।
এব্যাপারে মঙ্গলবার (২১ জুন) বাদি হয়ে মোঃ জলিল ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১৫-১৬ জনের নামে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন ।
অভিযোগে মোঃ জলিল উল্লেখ করেন, পুরান সৈয়দপুর এলাকার রুবেল, ইমরান, রানা, আনছার, রিহান, হিমু, শাওন, শুভ, নয়ন, বিল্লাল, শ্যামল, সেলিম, নাজমুলসহ আরো অজ্ঞাত নামা ১৫ থেকে ১৬ জন লোক দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে কোন কারন ছাড়া আমার মালিকানাধীন জলিল সুপার মার্কেটে প্রবেশ করে ট্রান্সপোর্ট অফিস ও পাশের ভাঙ্গারি দোকানের শাটার, থাই দেশীয় রামদা, ছুরি, বগি, হকিস্টিক ও কাঠের লাঠি দ্বারা এলোপাথারি পিটিয়ে ভেঙ্গে অফিসে প্রবেশ করে। এসময় ক্যাশে থাকা নগদ সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা ও ভাঙ্গারি দোকানে থাকা নগদ ১ লক্ষ ৪১ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে উল্লেখিত বিবাদীগণ সহ অজ্ঞাত নামা ১৫ থেকে ১৬ জন সন্ত্রাসী মার্কেটের সকল দোকানের শাটার, জিমমেসিয়ামের শাটার ও থাই এলোপাথারী কুপিয়ে ও পিটিয়ে ভেংগে ফেলে।
এসময় তারা মার্কেটের কিছুটা সামনেই চেয়ারম্যানের গরুর ফার্মে প্রবেশ করে কর্মচারীদের মারধর সহ অফিস ভাংচুর করে এবং আমার ছেলের একটি মটরসাইকেল আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলে। এর ফলে আমার প্রায় ৫ লাক্ষ টাকার ক্ষতিসাধন হয়।
অভিযোগ তিনি আরো উল্লেখ করেন, এতো কিছুর পরেও বিবাদীগণ শান্তা না হয়ে রাত প্রায় সাড়ে ১১ টার সময় আমার বাড়িতে প্রবেশ করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ সহ নানা ধরনের হুমকি ধামকি প্রদান করকে থাকে। আমি নিষেধ করলে বিবাদীগণ ক্ষিপ্ত হয়ে আমার বাড়ির ৩টি এসি জানালার সকল থাই ভাংচুর সহ আমার ভাই খলিল মিয়াকে মারধর করে এবং তার বাড়িঘরও ভাংচুর করে। পরবর্তীতে ১ ও ২নং বিবাদী আমার বৃদ্ধা মায়ের বসত ঘরে প্রবেশ করে সেখানে ঘুমিয়ে থাকা আমার মাকে সহ ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয় এবং সেখানে রাখা আমার ছেলের আরো একটি মটরসাইকেল বের করে এনে তারা আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়।
এসময় আমাদের আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। পরবর্তীতে ১নং বিবাদী একথা বলে আমাকে হুমকি প্রদান করে যে, যে কোন সময় আমাকে অপহরন করে প্রানে মেরে ফেলে আমার লাশ গুম করে দিবে। উপরোক্ত বিবাদীদের বিরুদ্ধে আদালতে একাধিক মামলা চলমান রয়েছে। আমি এর সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবী করছি।

এটাও চেক করেন

সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে যেমন পদ্মা সেতু দৃশ্যমান তেমনিভাবে আলীগঞ্জ মাঠও দৃশ্যমান – পলাশ

খবর নারাযনগঞ্জ.কম: জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব কাউসার আহমাদ পলাশ বলেছেন, বাঙালি …

Shares