ঢাকা-চট্টগ্রাম শিমরাইল মহাসড়কের দুই পাশে ১ হাজার  অবৈধ দোকান পাট কাচঁপুর হাইওয়ে থানা এবং সড়ক ও জনপদের সমন্বয়ে উচ্ছেদ করেছে । গত বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টম্বর) সকাল ১১ টায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে শিমরাইল মোড় থেকে ডাচ্ বাংলা ব্যাংক পর্যন্ত ।দীর্ঘদিন ধরে মহাসড়কের দুই পাশে অবৈধ দোকানপাট বসিয়ে অসাধু ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করে যাচ্ছে।মহাসড়কের দুইপাশ অবৈধ কোন দোকানপাট না থাকলে যানজট সৃষ্টি হবে না । সেলক্ষে কাচঁপুর হাইওয়ে থানা ও শিমরাইল ক্যাম্প হাইওয়ে পুলিশ মহাসড়কের দুইপাশে ১ হাজার দোকান পাট উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন , কাচঁপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জাামান, শিমরাইল ক্যাম্প এর টি আই মশিউর রহমান,কাচঁপুর ক্যাম্প এর টি আই ফারুক, সার্জেন্ট, আনসার ও সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।শিমরাইল হাইওয়ে ক্যাম্প টি আই মশিউর রহমান বলেন, আমরা তিন ধরে অবৈধ দোকানপাট মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য মাকিং করে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।যারা মহাসড়কে অবৈধ ভাবে দখল করে ব্যবসা করছেন তারা নিজ উদ্যোগে সরিয়ে নেওয়ার জন্য আহবান করা হয়েছে।মহাসড়কে কোন ধরণের অবৈধ দোকানপাট বসানো যাবে না । কেননা মহাসড়ক যানজট সৃষ্টি হতে পারে ।এ উচ্ছেদ অভিযান কয়েকদিন পর পর করা হবে ,কেউ যেন দখল করে মহাসড়কে অবৈধ ব্যবসা না করতে পারে।

কাচঁপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান বলেন ,মহাসড়ককে যানজট মুক্ত রাখতে আমাদের এ ধরণের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে । মহাসড়কের পাশে কোন প্রকার অবৈধ দোকান পাট বসতে দেওয়া হবে না।আমরা ভুলতা, কাচঁপুর পয়ন্টে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছি।আজ শিমরাইল মহাসড়কের দুইপাশে উচ্ছেদ অভিযান করা হচ্ছে।ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে প্রায় ৮২ কিলোমিটার সীমানা কাচঁপুর হাইওয়ে থানার আওতাধীন রয়েছে।যে সকল পয়েন্টে দুই পাশে অবৈধ দোকান পাট আছে সেগুলো আমরা উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে।মহাসড়কে কোন প্রকার যানজট সৃষ্টি করতে দেওয়া হবে না।